Friday, 11 July 2014

ফুটবল ভালবাসা

নাজমীন চৌধুরী

চুলার ধোঁয়া সরানো পাখাটাকে (আমি এটাকে ডাকি মাথা খারাপ করা যন্ত্র বলে) থামিয়ে ছেলের উদ্দ্যশ্যে দৌড়ালাম। বিমথিত বিলাপের শব্দ আসছে সেদিক থেকে। তার কাছাকাছি পৌঁছে দেখি সোফাতে উত্তাল বেগে থাপ্পড়ের দামামা। “ওকি পাগল হোয়ে গেল নাকি?” বিষয়টা নিরধারনের পূর্বেই চটাপট টেলিভিশন বন্ধ। ও ঘুরে আমার দিকে তাকিয়ে বলল, “ভাল করেছ, ওটা বন্ধই থাক”। বিশ-তিরিশ সেকেন্ডের দীর্ঘ অপেক্ষা। ততক্ষনে আমার রক্তের সমুদ্র তার সাধারণ তাপমাত্রা পেরিয়ে গেছে। উচ্চস্বরে বলতে চাইলাম, “তোর সমস্যাটা কিসে?” তবে সেটা ব্যক্ত করার সাহস না পেয়ে একটু বুদ্ধি খাটিয়ে বল্লাম, “তোমার সময় মতো আমাকে কষ্টের কথাটা বলতে পার; যদি ইচ্ছে হয়”।

“দুঃখিত, খুব অনুভূতি প্রবন হয়ে উঠেছিলাম। ডাচ রা হেরে গেল”।

আঃ! কী বাঁচাটাই না বাঁচলাম! ছেলে আমার পাগল হ্য় নি এখনও, ফুটবল খেলা দেখছিল।

শীর্ষ দল দুটোর চূড়ান্ত পর্বের খেলার অপেক্ষা হাতে গনা কয়েক দিনের মাত্র। জানামতে বেসিরভাগ খেলা প্রেমিক বন্ধুবর্গ যখন আর্জেন্টিনা বলতে বিহব্বল, সে তখন জার্মানীকে সমর্থন করছে মনে-প্রানে ও আপণ ধর্মে।

২০১৪ জুলাই ১১
ক্যানাডা


Lilac Leaves ♥♪♥ Geranium :: Composition: SNC
Photo Credit: SAI, VCV

No comments:

Post a comment