Sunday, 13 April 2014

বাঙ্গালীর বিশাল বিড়ম্বনা ও সম্ভাবনা ♥♪♥

~ শফিউল ইসলাম

[উত্‍র্গ: স্বপ্ন-সঞ্চারী গণ-জাগরণ মঞ্চের সাহসী সৈনিকদেরকে...। 'নোতুন দিনের ডাক। সাহসে ভরে যাক!']

বাঙ্গালী জাতির মহান গৌরব-ময় অধ্যায় মুক্তিযুদ্ধ। '৭১-এ নয় মাস রক্তক্ষয়ী-যুদ্ধ করে মুক্তি পেল। স্বপ্ন ছিলো শোষণহীন ধর্ম-নিরেপক্ষ সোনার-বাংলা গড়ার! প্রত্যয় ও প্রতিশ্রুতি ছিলো সব মানুষের মুক্তি। মুক্তির-মন্ত্র ও প্রেরণা ছিলো - 'মোরা একটি ফুলকে বাঁচাবো বলে যুদ্ধ করি ...।'

সেসব স্বপ্ন এখন সোনার হরিণ! এখন বাঙ্গালী রাজাকারদের রাজার ভি.আই.পি. সুবিধা দিয়ে পুলকিত। সেই স্বৈরাচার এখন সহযোগী - বিশেষ দূত! আরও অশনি সংকেত! সেই রাজাকার-প্রধান 'তেতুল-তত্ত্ববিদ' এখন 'বাল' সরকারের প্রশংসায় পঞ্চমুখ।

বনফুল তাঁর অনুগল্পে বাঙ্গালী চরিত্র ফুটিয়ে তুলেছেন এইভাবে:
'নিমাই, বলাই দুই ভাই। দুজনের মিল গলায়-গলায়।একদিন নিমাই লটারী জিতলো। তখন বলাই বাহুল্য।'
আজ জয় পেয়ে গেছি। এখন প্রজারা বাহুল্য! তরুণরা বাহুল্য! সংখ্যালঘুরা বাহুল্য! মুক্তি-মুক্তিযোদ্ধারা বাহুল্য!

রক্ষক এখন ভক্ষক! আমাদের অধ:পতনের ইতিবৃত্ত কবিতায় বলি:
সন্ত্রাসে সংখ্যালঘুরা নির্বিকার।
'মদীনা-সনদ' সঞ্চার। প্রয়োজন কার?
ধর্মান্ধ উত্পীড়ন, মানবতার হাহাকার।
মুক্ত-চিন্তা নিপীড়ন ও নির্যাতনের শিকার!

সরকার-স্বৈরাচার-রাজাকার,
ওরা মিলে-মিশে সব একাকার।
গণ-জাগরণ মঞ্চের আর কী দরকার?
চারিদিকে দেখি লোলুপ-লোভী নব্য-রাজাকার!

আজ আমাদের অগ্রযাত্রা অদূরদর্শী-ধর্মান্ধ, দুর্নীতি ও নীতিহীন-রাজনীতির দখলে। আমাদের সামনে অপার সুযোগ বিজ্ঞান-প্রযুক্তিমুখী অসম্প্রদায়িক সমাজ গড়ার! স্বপ্ন দেখি সাহসী তরুণরা এগিয়ে আসবে। তাই ডাক দিয়ে যাই। 'নোতুন দিনের ডাক, সাহসে ভরে যাক!'

♥♪♥
শফিউল ইসলাম
ক্যানাডা
২০১৪ এপ্রিল ১৩
১৪২১ বৈশাখ ০১

ফটো সৌজন্যে: ফেসবুক, মনিকা রশিদ - কভার ফটো। ২০১৪ এপ্রিল ১৩ :: ১৪২১ বৈশাখ ০১

No comments:

Post a comment